করোনায় চাকরি-কাজ হারিয়ে মৌসুমি অপরাধীরাও হত্যাকাণ্ডে

২৯ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবারের কথাবার্তার আসরে আপনাদের সবাইকে স্বাগত জানাচ্ছি আমি গাজী আবদুর রশীদ। আশা করছি আপনারা প্রত্যেকে ভালো আছেন। আসরের শুরুতেই ঢাকা ও কোলকাতা থেকে প্রকাশিত প্রধান প্রধান বাংলা দৈনিকের গুরুত্বপূর্ণ কিছু শিরোনাম তুলে ধরছি।

প্রথমে বাংলাদেশের শিরোনাম:

  • সুনির্দিষ্ট আশ্বাস না পেলে আন্দোলন চালিয়ে যাবেন সৌদি প্রবাসীরা-দৈনিক ইত্তেফাক
  • নকল মাস্ক: জেএমআই চেয়ারম্যান গ্রেফতার-দৈনিক কালের কণ্ঠ
  • করোনায় আরো ২৬ জনের মৃত্যু-প্রথম আলো
  • বিশ্বে করোনায় ১০ লাখ ছাড়ালো-দৈনিক সমকাল
  • কালো হয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশসহ এশিয়ার নদীর পানি-মানবজমিন
  • ছাত্রাবাসে নববধূ গণধর্ষণ: ৩ ছাত্রলীগ নেতা ৫ দিনের রিমান্ডে-দৈনিক যুগান্তর

ভারতের শিরোনাম:

  • ২ সপ্তাহের লড়াই শেষ, হাথরায় ধর্ষিত দলিত তরুণীর মৃত্যু দিল্লির হাসপাতালে -দৈনিক আজকাল
  • মোদি সরকারের সমালোচনার শাস্তি! ভারতে সব অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ, হাত গোটাল অ্যামনেস্টি-আনন্দবাজার পত্রিকা
  • কালো টাকার উৎস বন্ধ, তাই বিরোধিতা’, কৃষি বিল নিয়ে বিরোধীদের তোপ মোদির -সংবাদ প্রতিদিন

এবারে চলুন বাছাইকৃত কয়েকটি খবরের বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণে নিরলস কাজ করে যাচ্ছি বলে জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দৈনিক যুগান্তরের এ খবরে লেখা হয়েছে,সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে মন্ত্রিপরিষদ সদস্যরা তাকে ৭৪ তম জন্মদিনের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানালে তিনি তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় জনগণের জন্য ভালো কিছু করার আকঙ্খার কথা পুনর্ব্যক্ত করেন।

এদিকে দৈনিকটির অন্য একটি খবরের শিরোনামে লেখা হয়েছে,দেশ দুঃসময়ে না, বিএনপিই দুঃসময়ে বলেছেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বিএনপির রাজনীতির সমালোচনা করে ঐ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, বিএনপি নিজেদের রাজনৈতিক ইস্যু না পেয়ে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে মাঠ গরমের ব্যর্থ চেষ্টা করছে। তারা মূলত সাম্প্রদায়িক চেতনা লালন করে। তাদের অপতৎপরতা সফল হবে না।

চাকরি-কাজ হারিয়ে মৌসুমি অপরাধীরাও হত্যাকাণ্ডে-দৈনিক ইত্তেফাকের এ শিরোনামের খবরে লেখা হয়েছে, করোনা মহামারি শুরুর প্রথম দিকে অপরাধপ্রবণতা কমে গেলেও হঠাত্ করেই বেড়ে গেছে অপরাধ ও প্রতারণার ঘটনা।

সাম্প্রতিক কিছু ঘটনায় বিশ্লেষকেরা বলছেন, চাকরি চলে যাওয়া, উপার্জন না থাকাসহ নানা কারণে অপরাধপ্রবণতা বেড়েছে। শুধু পুলিশের পক্ষে এই অপরাধীদের দমন সম্ভব নয়। সামাজিকভাবে প্রতিকারের ব্যবস্থা করতে হবে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের তথ্য অনুযায়ী রাজধানীর ৫০টি থানায় গত মার্চে মামলার সংখ্যা ছিল ২ হাজার ৫৫টি। এপ্রিলে তা কমে দাঁড়ায় ৩৫২টিতে। মে মাসে মামলার সংখ্যা বেড়ে হয় ৫১৮টি। আর জুনে তা আরো বেড়ে হয় ১ হাজার ১৭৭টি।

আইন আদালত সম্পর্কিত কয়েকটি খবর:

দৈনিক সমকালসহ প্রায় সব দৈনিকের খবরে লেখা হয়েছে, মাস্ক, পিপিই ও অন্যান্য স্বাস্থ্য সরঞ্জাম সরবরাহে দুর্নীতির মামলায় জেএমআই গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. আব্দুর রাজ্জাককে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে ৫ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।

এদিকে,সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার দায় নিরূপণে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করে অনুসন্ধানের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

 ভারতের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি খবরের বিস্তারিত:

আর কত দিন বন্দি করে রাখা হবে মেহবুবাকে, সুপ্রিম কোর্টে প্রশ্নের মুখে কেন্দ্র-দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকার এ খবরে লেখা হয়েছে, এক বছরেরও বেশি সময় ধরে উপত্যকায় বন্দি মেহবুবা মুফতি।

তা নিয়ে এ বার কেন্দ্রের কাছে জবাব চাইল সুপ্রিম কোর্ট। আদালত জানিয়েছে, চিরদিন কাউকে বন্দি করে রাখা যায় না। জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে আর কত দিন এ ভাবে বন্দি করে রাখা হবে, কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে তা-ও জানতে চেয়েছে শীর্ষ আদালত।

গত বছর ৫ অগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা খর্ব করে সেখানকার প্রাক্তন তিন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লা, ওমর আবদুল্লা এবং মেহবুবা মুফতি-সহ উপত্যকার বহু রাজনীতিককে বন্দি করা হয়। তার পর থেকে একে একে ফারুক, ওমর-সহ অনেককে মুক্তি দিলেও, এখনও বন্দি করে রাখা হয়েছে মেহবুবা মুফতিকে।

কালো টাকার উৎস বন্ধ, তাই বিরোধিতা’, কৃষি বিল নিয়ে বিরোধীদের তোপ মোদির-দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন

বিস্তারিত খবরে লেখা হয়েছে,কালো টাকার উৎস বন্ধ। তাই বিরোধীতা করছে বিরোধীরা। যেভাবে বিরোধীতা করা হচ্ছে, সেটা আসলে কৃষকদেরই অপমান। নতুন কৃষি আইন নিয়ে দেশজুড়ে বিক্ষোভের মধ্যেই পালটা আক্রমণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

অভিযোগ করলেন, কৃষক স্বার্থে নয়,স্রেফ বিরোধিতার জন্য নয়া আইনের বিরোধিতা করছে কংগ্রেস-সহ অন্যান্য বিরোধী দলগুলি। মঙ্গলবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উত্তরাখণ্ডে ‘নমামি গঙ্গা’ মিশনের অধীন কয়েকটি প্রকল্পের উদ্বোধনে গিয়ে মোদি বলেন, “সংসদের সদ্যসমাপ্ত অধিবেশনে কৃষক, শ্রমিক, এবং স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের জন্য বেশ কিছু সংস্কার করা হয়েছে।

এই সংস্কারগুলি দেশের কৃষক, শ্রমিক, যুবসমাজ এবং মহিলাদের শক্তিশালী করবে। কিন্তু কিছু মানুষ যে শুধু বিরোধিতা করার জন্যই এই আইনের বিরোধিতা করছে, সেটা গোটা দেশ দেখতে পাচ্ছে।” প্রধানমন্ত্রীর দাবি, বিরোধীরা কৃষকদের বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে।

নতুন আইন বলবত হওয়ার পরও আগের মতোই ‘ন্যূনতম সহায়ক মুল্য দিয়ে ফসল কিনবে সরকার। নতুন আইন পাশের ফলে কৃষকদের কাছে আরও বিকল্প বাড়ল। নিজেদের উতপাদিত ফসল ইচ্ছেমতো জায়গায় বিক্রির স্বাধীনতা পেলেন কৃষকরা। মোদি বলছেন,”কিছু মানুষ এই আইনের বিরোধিতা করছেন। কারণ, তাঁদের কালো টাকা রোজগারের আরও একটা উৎস শেষ হয়ে গেল।”

মোদী সরকারের সমালোচনার ‘শাস্তি’! ভারতে সব অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ, হাত গোটাল অ্যামনেস্টি-দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা/আজকাল

বিশ্ববাসীর মানবাধিকার সুরক্ষিত করাই তাদের প্রচেষ্টা। ভারতে সেই অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল সঙ্কটের মুখে। সব ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ‘ফ্রিজ’। বাধ্য হয়ে মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে ভারতে সব কাজকর্ম বন্ধ করে দিল আন্তর্জাতিক এই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা।

ভারতের সব কর্মীকেও কার্যত ছেঁটে ফেলার সিদ্ধান্ত নিল অ্যামনেস্টি। ওয়াকিবহাল মহলের প্রশ্ন, জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নেওয়া, দিল্লিতে গোষ্ঠী সংঘর্ষের মতো ঘটনায় মোদী সরকারের সমালোচনা করার জন্যই কি মাসুল দিতে হল অ্যামনেস্টি-কে?

ভারতে কোনও সংস্থা যদি বিদেশি অনুদান নিতে চায় তবে বিদেশি অনুদান (নিয়ন্ত্রণ)আইনে নথিবদ্ধ করা বাধ্যতামূলক। নয়াদিল্লির অভিযোগ, অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল তা করেনি।

নয়াদিল্লির তরফে যে সব অভিযোগ আনা হয়েছে, সেগুলি উড়িয়ে দিয়ে অ্যামনেস্টির বক্তব্য, “ভারত সরকারের ক্রমাগত মানবাধিকার সংগঠনগুলিকে অপদস্থ করার অপচেষ্টার এটা শেষ নিদর্শন। প্রমাণ হয়নি এমন অভিযোগ এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত অভিযোগের ভিত্তিতেই সরকার এই ব্যবস্থা নিয়েছে।” দেশের সমস্ত আইন কানুন মেনে তাঁরা কাজকর্ম করেন বলেও দাবি করেছেন সংগঠনের কর্মকর্তারা।